ডঃ এ পি জে আবদুল কালামের বিখ্যাত ১২ টি উক্তি

 ব্যক্তিত্ব      
আবুল পাকির জয়নুল-আবেদিন আব্দুল কালাম (APJ Abdul Kalam) (১৫ অক্টোবর ১৯৩১ - ২৭ জুলাই ২০১৫) ছিলেন ভারতের একাদশ রাষ্ট্রপতি (২০০২ ~ ২০০৭)।

ভারতের মহাকাশ ও সামরিক ক্ষেপণাস্ত্র উন্নয়ন কর্মসূচির সঙ্গে তিনি যুক্ত ছিলেন। ক্ষেপণাস্ত্র ও মহাকাশযানবাহী রকেট উন্নয়নের কাজে তাঁর অবদানের জন্য তাঁকে ‘ভারতের ক্ষেপণাস্ত্র মানব’ বা ‘মিশাইল ম্যান অফ ইন্ডিয়া’ বলা হয়।

১) স্বপ্ন সেটা নয় যেটা তুমি ঘুমিয়ে দেখো। স্বপ্ন সেটা যেটা তোমায় ঘুমোতে দেয় না।

২) সূর্যের মতো দীপ্তিমান হতে হলে প্রথমে তোমাকে সূর্যের মতোই পুড়তে হবে।

৩) যদি তুমি তোমার কাজকে সম্মান কর, দেখো তোমায় আর কাউকে সম্মান করতে হবে না। কিন্তু তুমি যদি তোমার কাজকে অসম্মান কর, তাহলে তোমায় সবাইকে স্যালুট করতে হবে।

৪) একজন খারাপ ছাত্র একজন দক্ষ শিক্ষকের কাছ থেকে যা শিখতে পারে, তার চেয়ে একজন ভালো ছাত্র একজন খারাপ শিক্ষকের কাছ থেকে অনেক বেশি শিখতে পারে।

৫) প্রতিদিন সকালে এই পাঁচটা লাইন বলো :
    – আমি সেরা।
    – আমি করতে পারি।
    – সৃষ্টিকর্তা সব সময় আমার সঙ্গে আছে।
    – আমি জয়ী।
    – আজ দিনটা আমার।

৬) আমি আবিষ্কার করলাম সবচেয়ে দ্রুতগতিতে বেশী বিক্রি হয়ে যায় সিগারেট ও বিড়ি। অবাক হয়ে ভাবতাম, গরিব মানুষেরা তাদের কঠোর পরিশ্রমে উপার্জিত অর্থ এভাবে ধোঁয়া গিলে উড়িয়ে দেয় কেন।

৭) জীবন একটি কঠিন খেলা। ব্যক্তি হিসেবে মৌলিক অধিকার ধরে রাখার মাধ্যমেই শুধুমাত্র তুমি সেখানে জয়ী হতে পারবে।

৮) আকাশের দিকে তাকাও। আমরা একা নই। পুরো মহাবিশ্ব আমাদের প্রতি বন্ধুত্বসুলভ।

৯) তৃপ্তি একটি চলমান প্রক্রিয়া এবং এটি কোনো আকস্মিক ঘটনা নয়।

১০) যদি একটি দেশকে দুর্নীতিমুক্ত এবং সুন্দর মনের মানুষের জাতি হতে হয়, এ ক্ষেত্রে তিনজন মানুষ পার্থক্য এনে দিতে পারে। তারা হলেন : বাবা, মা এবং শিক্ষক।

১১) সমস্যাকে কখনো এড়িয়ে যেতে চাইবে না। বরং সমস্যা এলে তার মুখোমুখি দাঁড়াবে। সমস্যাবিহীন সাফল্যে কোনো আনন্দ নেই। সব সমস্যার সমাধান আছেই।

১২) জীবনের অভিজ্ঞতা দিয়ে মূলত ৪টি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের প্রতি আমি লক্ষ্য করি :
    ক) জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণ
    খ) জ্ঞান আহরণ
    গ) অনেক বড় সমস্যায় পড়লেও লক্ষ্য থেকে সরে না আসা
    ঘ) কোনো কাজে সাফল্য ও ব্যর্থতা দুটোকেই নেতৃত্বগুণে সামাল দিতে পারা।












সর্বাধিক পঠিত